শনিবার, ২২ জুন, ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ, বিপদ কি বাড়লো নেতানিয়াহুর?

বিশ্ব ডেস্ক

প্রকাশিত: জুন ১০, ২০২৪, ১০:০২ এএম

মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ, বিপদ কি বাড়লো নেতানিয়াহুর?


ইসরায়েলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করলেন বেনি গানৎজ। রোববার (৯ জুন) এক বিবৃতিতে গানৎজ নিজেই জানিয়েছেন তার সরে দাড়ানোর সিদ্ধান্ত। গাজা যুদ্ধের মধ্যে তার এই পদত্যাগকে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর জন্য বড় ধাক্কা হিসেবেই দেখা হচ্ছে। খবর, সিএনএন।
প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সাথে বিরোধের জেরে এসেছে এমন ঘোষণা। এক সংবাদ সম্মেলনে গানৎজ বলেন, নেতানিয়াহু আমাদের প্রকৃত বিজয়ের দিকে অগ্রসর হতে বাধা দিচ্ছেন। এই কারণেই আমরা আজ জরুরি সরকার ছেড়ে যাচ্ছি। এছাড়া আগাম নির্বাচনের আহ্বানও জানান তিনি। বলেন, এমন একটি নির্বাচন হওয়া উচিত যা এমন একটি সরকার গঠন করবে, যে সরকার জনগণের আস্থা অর্জন এবং চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে সক্ষম হবে। আমি নেতানিয়াহুকে আহ্বান জানাই, সবার মতামতের ভিত্তিতে নতুন নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করুন। গানৎজ ইতোপূর্বে দেশটির বিচার ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়সহ উপ-প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বও সামলেছেন।
এদিকে, যুদ্ধ পরবর্তী গাজার শাসন ব্যবস্থা নিয়ে দু’পক্ষের দ্ব›দ্ব চলছিল বেশ কিছুদিন ধরেই। স্পষ্ট সিদ্ধান্ত নিতে ৮ জুন পর্যন্ত সময় বেধে দেন প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুকে। অন্যথায় সরে দাড়ানোর হুঁশিয়ারি দেন গানৎজ। তবে হামাস নির্মুল না হওয়া পর্যন্ত গাজায় অভিযান চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তে অনড় নেতানিয়াহু। গানৎজ সরে দাড়ানোর প্রতিক্রিয়ায় প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বলেন, যুদ্ধক্ষেত্র ছেড়ে যাওয়ার সময় নয় এটা।
প্রসঙ্গত, গানৎজের পদত্যাগে একমাত্র মধ্যপন্থি জোটের সমর্থন হারাবে ইসরায়েল সরকার। বর্তমানে ইসরায়েলি রাজনীতিতে তাকে নেতানিয়াহুর প্রধান প্রতিদ্ব›িদ্ব হিসেবে দেখা হয়। তবে ইসরায়েলি সংসদ নেসেটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাবে না নেতানিয়াহুর সরকার। কারণ যুদ্ধকালীন সরকার আর দেশ পরিচালনার জোট সরকার আলাদা।
 

ডেইলি খবর টুয়েন্টিফোর

Link copied!