বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই, ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১
অঙ্কের ফেরে পেনশনে বিভেদ

প্রত্যয়ে ১৫ বছরে পাবে দুই কোটি ২৪ লাখ টাকা

ডেইলি খবর ডেস্ক

প্রকাশিত: জুলাই ৩, ২০২৪, ১১:০৩ এএম

প্রত্যয়ে ১৫ বছরে পাবে দুই কোটি ২৪ লাখ টাকা

সর্বজনীন পেনশন স্কিম প্রত্যাহারের দাবিতে শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সর্বাত্মক কর্মবিরতির কারণে ৩৫টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অচলাবস্থা চলছে। গত সোমবার থেকে শুরু হওয়া কর্মবিরতির কারণে এসব বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস, পরীক্ষা এবং দাপ্তরিক কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অন্তর্ভুক্তির কারণে শিক্ষকরা যেমন ক্ষতির পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেছেন, তেমনি পেনশন কর্তৃপক্ষও এ ব্যবস্থায় বহু গুণ লাভের হিসাব তুলে ধরছেন। এ বিভেদমূলক অবস্থানের কারণে উচ্চ শিক্ষাঙ্গনে অনিশ্চিত অবস্থা তৈরি হয়েছে।

জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ বলছে, শিক্ষকরা যেসব বিষয়ে আন্দোলন করছেন, তা অনেকটাই ভুল বোঝাবুঝি কিংবা সর্বজনীন পেনশনের প্রত্যয় স্কিম পুরোপুরি না বোঝার কারণে। বিদ্যমান সুবিধার চেয়েও প্রত্যয় স্কিমে অন্তত ১২ গুণ বেশি অবসরভাতা পাবেন শিক্ষকরা।

পেনশন কর্তৃপক্ষ বলছে, প্রত্যয় স্কিমে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক কিংবা কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরই লাভ বেশি। আর শিক্ষকদের অবসরের বয়স ৬৫ বছর থাকার বিষয়টি প্রত্যয় স্কিমে যুক্ত করে শিগগিরই সংশোধনী দেওয়া হবে। তবে শিক্ষক নেতারা এ সুবিধাকে শুভংকরের ফাঁকি হিসেবে দেখছেন। তারা বলছেন, পেনশন কর্তৃপক্ষের ব্যাখ্যা আন্দোলনকে বিভ্রান্ত করার জন্য।

সরকারের সিদ্ধান্ত, স্বশাসিত, স্বায়ত্তশাসিত ও রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠানে ১ জুলাইয় থেকে নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সর্বজনীন পেনশন কর্মসূচি প্রত্যয় স্কিমের অধীনে আসবেন। অর্থাৎ বর্তমানে যারা চাকরিতে আছেন তারা আগের পেনশনের অধীনেই থাকবেন। তবে সব ধরনের স্বশাসিত কিংবা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবীরা বিষয়টি মেনে নিলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বাদ সেধেছেন। প্রত্যয় স্কিম প্রত্যাহারের প্রজ্ঞাপন বাতিলের দাবিতে তারা আন্দোলন করছেন।

শিক্ষকদের এমন আন্দোলনের কোনো যৌক্তিকতাই নেই সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে। অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী শিক্ষকদের এ আন্দোলন অযৌক্তিক বলে অভিহিত করেছেন। পরিকল্পনা কমিশনে একনেক বৈঠক শেষে তিনি বলেন, প্রত্যয় স্কিম নিয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ।

ডেইলি খবর টুয়েন্টিফোর

Link copied!