শনিবার, ২২ জুন, ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

করোনা: বিশ্বজুড়ে একদিনে চার হাজারের বেশি মৃত্যু

প্রকাশিত: ০৫:২৮ এএম, জুলাই ৫, ২০২০

করোনা: বিশ্বজুড়ে একদিনে চার হাজারের বেশি মৃত্যু

বিশ্বব্যাপী চলছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব। এ ভাইরাসটির তাণ্ডবে অসহায় হয়ে পড়েছে গোটা বিশ্ব। প্রতি মুহূর্তে বিশ্বব্যাপী আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। বিশ্বব্যাপী করোনা শনাক্ত মানুষের সংখ্যা ১ কোটি ১৩ লাখ ছাড়িয়ে গেছে বলে জানিয়েছে করোনা নিয়ে আপডেট দেয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ড ও মিটার। রোববার (৫ জুলাই) সকাল আটটা পর্যন্ত সারা বিশ্বে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক কোটি ১৩ লাখ ৭৯ হাজার ৭৭০ জনে। আর মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫ লাখ ৩৩ হাজার ৩৯১ জন। আর সুস্থ হয়েছেন ৬৪ লাখ ৩৯ হাজার ১১৬ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৮৮ হাজার ৬১৬ জন। মারা গেছেন ৪২৫৮ জন। আর একই সময়ে সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ৪১ হাজারের বেশি মানুষ। চীনের উহানে করোনা সংক্রমণ সৃষ্টি হলেও এখন অদৃশ্য এই ভাইরাসটির বেশি প্রকোপ আমেরিকা ও দক্ষিণ এশিয়ায়। ইউরোপের কিছু দেশেও ফের ভাইরাসটির সংক্রমণ বেড়েছে। নতুন করে আক্রান্তের রেকর্ড হয়েছে চীন-জাপানেও। ফলে দ্বিতীয় দফার সংক্রমণ নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সতর্ক করেছে, অনেকে দেশে করোনার সংক্রমণের মাত্রা মারাত্মক ঊর্ধ্বমুখী। তাই করোনা প্রতিরোধের পদক্ষেপ দ্বিগুণ করতে হবে। করোনা নিয়ে আপডেট দেয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের দেওয়া তথ্যমতে, রোববার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ১৩ লাখ ৭৯ হাজার ২৯৬ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৮৮ হাজারের বেশি মানুষ। এছাড়া বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৩৩ হাজার ৩৯১ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৪২৫৮ জন। করোনা থেকে মোট সুস্থ হয়েছেন ৬৪ লাখ ৩৯ হাজার ১১৬ জন। যার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ৪১ হাজার ২০৫ জন। করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে প্রথম অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। করোনায় সবচেয়ে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২৯ লাখ ৩৫ হাজার ৭৭০ জন। যুক্তরাষ্ট্রে করোনার আঘাতে মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৩২ হাজার ৩১৮ জনের। করোনায় মোট মৃতের দিক থেকেও প্রথমে রয়েছে দেশটি। দেশটিতে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১২ লাখ ৬০ হাজার ৪০৫ জন। করোনায় আক্রান্তের থেকে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৫ লাখ ৭৮ হাজার ৩৭৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৬৪ হাজার ৩৬৫ জনের। আর এ পর্যন্ত ব্রাজিলে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯ লাখ ৭৮ হাজার ৬১৫ জন। করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে রাশিয়া। রাশিয়ায় মোট ৬ লাখ ৭৪ হাজার ৫১৫ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। আর দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ১০ হাজার ২৭ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৪৬ হাজার ৮৭৯ জন। লকডাউন শিথিলের পর থেকে চতুর্থ অবস্থানে থাকা ভারতে করোনার সংক্রমণ বাড়ছে হু হু করে। ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৬ লাখ ৭৩ হাজার ৯০৪ জন আর করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৯ হাজার ২৭৯ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৯ হাজার ৬২ জন। সংক্রমণ বাড়ছে বাংলাদেশেও। ১৮ নম্বর অবস্থানে থাকা বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৫৯ হাজার ৬৭৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। দেশে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৯৯৭ জনের। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭০ হাজার ৭২১ জন। করোনা পরিস্থিতিতে ভাইরাসটি প্রকোপ নিয়ন্ত্রণে দ্বিগুণ পদক্ষেপ নিতে সব দেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মহাপরিচালক টেডরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস। বিশেষ করে দুই আমেরিকা ও দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোকে সতর্ক করেছেন তিনি। চীনের উহান থেকে শুরু হয়ে বিশ্বব্যাপী মহামারি রূপ ধারণ করা করোনাভাইরাস মূলত শ্বাসতন্ত্রে সংক্রমণ ঘটায়। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভালো হলে এ রোগ কিছুদিন পর এমনিতেই সেরে যেতে পারে। তবে ডায়াবেটিস, কিডনি, হৃদযন্ত্র বা ফুসফুসের পুরোনো রোগীদের ক্ষেত্রে ডেকে আনতে পারে মৃত্যু।
Link copied!