মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সেই নীলার লেডিস ক্লাব গুঁড়িয়ে দিল

প্রকাশিত: ০৯:৪৮ এএম, আগস্ট ১১, ২০২২

সেই নীলার লেডিস ক্লাব গুঁড়িয়ে দিল

ডেইলি খবর ডেস্ক: সেই নীলার লেডিস ক্লাব গুঁড়িয়ে দিল রাজউক। নারায়নগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার পূর্বাচলের বহিষ্কৃত আওয়ামী লীগ নেত্রী ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফেরদৌসী আলম নীলার উপশহর প্রকল্পে প্রতিবন্ধীদের খেলার জায়গা দখল করে গড়ে তোলা ‘পূর্বাচল লেডিস ক্লাব’ ও ‘লাভ ফরেস্ট রেস্টুরেন্ট’ গুঁড়িয়ে দিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্পোরেশন (রাজউক) কর্তৃপক্ষ। এছাড়া অন্যান্য দোকানপাট-অবকাঠামোও ভেঙে দেয় রাজউক।বুধবার (১০ আগস্ট) রাজউক অভিযান চালিয়ে এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। উচ্ছেদ অভিযানের নেতৃত্ব দেন রাজউকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল ইসলাম। তিনি বলেন, পূর্বাচলের জায়গা দখল করে স্থানীয় এক প্রভাবশালী নেত্রী এসব অবকাঠামো গড়ে তুলেছিলেন। অভিযান চালিয়ে বুলডোজার দিয়ে সেগুলো গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে।রাজউক কর্তৃপক্ষ জানায়, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফেরদৌসী আলম নীলাসহ স্থানীয় বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তি দীর্ঘদিন ধরে রাজউকের জমিতে অবৈধভাবে বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণ করে নিজেদের দখলে রেখেছেন। বিষয়গুলো রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নজরে এলে বুধবার পূর্বাচলের ১৩ নাম্বার সেক্টরে অভিযান চালিয়ে নীলার লেডিস ক্লাব ও ২৪ নম্বর সেক্টরে লাভ ফরেস্ট রেস্টুরেন্টের সমস্ত স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। রাজউক ও স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন, পূর্বাচল ১৩ নম্বর সেক্টরের ৩০৫ নম্বর রোডে প্রায় ৩ বিঘা জমি প্রতিবন্ধীদের খেলার মাঠ হিসেবে সংরক্ষণ করেছিল রাজউক। ওই প্লটের দুই বিঘা নীলা দখল করে তৈরি করেছেন পূর্বাচল লেডিস ক্লাব। চারপাশে সীমানা দিয়ে ভেতরে তৈরি করা হয়েছে সুইমিংপুল, অফিসকক্ষ, ব্যায়ামাগারসহ কয়েকটি অবকাঠামো। নীলা নিজেই ওই ক্লাবের সভাপতি। এরই মধ্যে ক্লাবটির সদস্যপদ বিক্রি চলছে তিন লাখ টাকায়। আজীবন সদস্যপদ চার লাখ আর দাতা সদস্যপদ বেচাকেনা হচ্ছে ছয় লাখ টাকায়। এরই মধ্যে ক্লাবের সদস্য সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়েছে।
Link copied!