বুধবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১

শুধু শিশুদের জন্য টিকা তৈরি করছে রাশিয়া

প্রকাশিত: ০১:৪৬ পিএম, জুলাই ১২, ২০২০

শুধু শিশুদের জন্য টিকা তৈরি করছে রাশিয়া

শুধুমাত্র শিশুদের ব্যবহার উপযোগী করে নভেল করোনাভাইরাস প্রতিরোধী বিশেষ টিকা তৈরির কথা জানিয়েছে রাশিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান রসপোট্রেবেনজর। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান আনা পোপোভা রাশিয়া ১ টিভি চ্যানেলকে শনিবার বলেন, ‘শিশুদের জন্য বিশেষ ভ্যাকসিন দরকার, যাতে অবশ্যই বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকতে হবে।’ ‘আমরা কেবল কাজ শুরু করেছি। চলতি বছরে ভ্যাকসিনটির ট্রায়াল শেষ হওয়ার সম্ভাবনা কম।’ শিশুদের জন্য আলাদা ভ্যাকসিন তৈরির আহ্বান অনেক দেশের গবেষকেরা কয়েক মাস ধরে জানাচ্ছেন। রাশিয়া প্রথম এ বিষয়ে ঘোষণা দিল। এর আগে দেশটি প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য আরেকটি ভ্যাকসিন তৈরির কথা জানায়। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় তৈরি হতে থাকা ভ্যাকসিনটি দুই বছরের বেশি সময় মানুষকে করোনা থেকে সুরক্ষা দেবে বলে প্রমাণ পাওয়ার দাবি করেছেন সেদেশের কর্মকর্তারা। এই ভ্যাকসিনটি এখন চূড়ান্ত ধাপের ট্রায়ালে আছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অফিশিয়াল পত্রিকা (Krasnaya Zvezda) জানিয়েছে, মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এই ভ্যাকসিনটি যৌথভাবে তৈরি করছে গামেলেয়া রিসার্চ ইন্সটিটিউট। রাশিয়ার জাতীয় গবেষণা প্রতিষ্ঠানের প্রধান আলেকজান্ডার গিন্সবুর্গ বলেছেন, ‘আমাদের ভ্যাকসিনটি শুধুমাত্র অ্যান্টিবডি তৈরি করছে না, পাশাপাশি দীর্ঘ সময়ের জন্য মানুষকে সুরক্ষিত রাখবে বলে আমরা প্রমাণ পেয়েছি।’ আলেকজান্ডার গিন্সবুর্গ বলছেন, ‘আমাদের ভ্যাকসিন নেয়ার পর কমপক্ষে ২ বছর নভেল করোনাভাইরাস থেকে মানুষ সুরক্ষিত থাকবে। এই সময়সীমা বেশিও হতে পারে।’ ভ্যাকসিন বা টিকা মূলত কোনো রোগকে প্রতিরোধ করার জন্য শরীরে দেয়া হয়। অধিকাংশ ভ্যাকসিন সংশ্লিষ্ট ভাইরাসের দুর্বল ভার্সনে তৈরি করে প্রয়োগ করা হয়। কোনো ব্যক্তি সংক্রমিত হলেও অসুস্থ হওয়ার আগেই শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে উঠে। একই সঙ্গে আক্রান্ত ব্যক্তির শরীর থেকে রোগটি ছড়ায় না। গিন্সবুর্গ জানিয়েছেন, রাশিয়ায় টিকাদান কর্মসূচির জন্য প্রাথমিকভাবে ৭০ মিলিয়ন ডোজ তৈরি করা হবে। রাশিয়া এই ভ্যাকসিনটির নাম এখনো জানায়নি। দেশটি আশা করছে, জুলাইয়ের ভেতর হিউম্যান ট্রায়াল শেষ করে আগস্টে অনুমোদন নেয়া যাবে।
Link copied!