বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০

মিমের নয়া মিশন

প্রকাশিত: ০৪:৪৯ এএম, এপ্রিল ২০, ২০২১

মিমের নয়া মিশন

করোনা পরিস্থিতি ক্রমশই খারাপের দিকে যাচ্ছে। এমন কঠিন সময়ে অনেক তারকাই কাজ বন্ধ রেখেছেন। শুটিং করছেন না নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে। তাদের মধ্যে রয়েছেন চলতি প্রজন্মের জনপ্রিয় অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিমও। নিজে বাসায় থেকে সবাইকে বাড়িতে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন মিম। তিনি বলেন, দেখতেই তো পাচ্ছেন পরিস্থিতি কতটা ভয়ানক। এখনই সাবধান না হলে আমাদের বড় ক্ষতি হয়ে যেতে পারে। আমি সবাইকে ঘরে থাকার জন্য বিশেষ অনুরোধ করছি। নিজে বাঁচুন, অন্যকেও বাঁচার সুযোগ দিন। দয়া করে সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। খুব প্রয়োজন ছাড়া বাসা থেকে বের হওয়া যাবে না। নিজেও এই মুহূর্তে স্বেচ্ছায় ঘরবন্দি রয়েছেন মিম। ঘরে থাকলেও বসে নেই তিনি। এই সময়টাকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করছেন। নেমেছেন নতুন মিশনে। মন দিয়েছেন শরীরচর্চার দিকে। লকডাউনের এই সময়টায় ওজন কমানোর চ্যালেঞ্জ হাতে নিয়েছেন। মিম বলেন, গত মাস থেকেই এই উদ্যোগ নিয়েছিলাম। কিন্তু সময় দিতে পারতাম না ওইভাবে। এবার যেহেতু সময়, সুযোগ হয়েছে তাই শরীরের কাঠামোটা একটু ঠিকঠাক করতে চাই। এদিকে এপ্রিল মাসেই ‘ইত্তেফাক’- ছবির শুটিং করার কথা ছিল তার। কিন্তু করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সেটা আর সম্ভব হয়নি। তবে বিদেশি একটি স্ট্রিমিং প্ল্যাটফরমের ওয়েব ফিল্মের শুটিং শেষ করেই ঘরবন্দি হয়েছেন মিম। করেছেন বেশকিছু বিজ্ঞাপনের কাজ। সব স্বাভাবিক না হলে কাজ শুরু করবেন না বলেও উল্লেখ করেন এই নায়িকা। এদিকে প্রথম রোজার প্রথম ইফতারে শামিল হয়ে সম্প্রীতির বার্তা দিয়েছিলেন মিম। ইফতার করার সেই ছবি ভাইরাল হয়েছে। তার ইফতারে অংশগ্রহণের দৃশ্যকে দারুণ ও পবিত্র বলে মন্তব্য করেছেন অনেকেই। তাই ভাসিয়েছেন প্রশংসায়। এদিকে চিত্রনায়িকা কবরী, চিত্রনায়ক ওয়াসিম ও অভিনেতা এসএম মহসীনের মতো শোবিজের মানুষকে হারিয়ে মন খারাপ মিমের। তিনি বলেন, পর পর তিনজন গুণীকে হারালাম আমরা। তাদেরকে দেখেই এই জগতে আসা। তারা অনুপ্রেরণা ছিল। তাদের চলে যাওয়ায় কষ্ট পেয়েছি। প্রার্থনা করছি তারা যেখানেই থাকুক ভালো থাকুক।
Link copied!